ব্রেকিং নিউজ
মৌলভীবাজারে দুগ্ধ দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জিল্লুর রহমান এমপি কমলগঞ্জে ধলাই নদীর বাঁধ ভেঙ্গে এক লাখ লোক পানি বন্দি মৌলভীবাজারের পানিবন্দি মানুষের পাশে এমপি জিল্লুর রহমান রাজনগরে “সিসিমপুর মেলার উদ্বোধন মৌলভীবাজারে প্রার্থীতা ফিরে পেলেন তাজ টেংরাবাজার টু শমসেরনগর সড়ক সংস্কারের ভিত্তিপ্রস্তর করলেন এমপি জিল্লুর রহমান রাজনগরে কৃষি উপকরণ বিতরণ করলেন এমপি জিল্লুর রহমান মৌলভীবাজার সদর উপজেলায় ৩ হাজার কৃষকের মধ্যে কৃষি উপকরণ বিতরন মৌলভীবাজারে আট হাজার নারী পুরুষ পেলেন এমপি জিল্লুর রহমানের ঈদ উপহার বেশি করে খাদ্য উৎপাদন করতে পারলে কারো কাছে মাথা নত করতে হবে না- কৃষিমন্ত্রী

বড়লেখায় দাখিল পরীক্ষায় নকলে সহযোগিতা, ৮ কক্ষ পরিদর্শককে প্রত্যাহার

প্রথম পাতা » অনিয়ম-দুর্নীতি » বড়লেখায় দাখিল পরীক্ষায় নকলে সহযোগিতা, ৮ কক্ষ পরিদর্শককে প্রত্যাহার
বুধবার ● ১৭ মে ২০২৩


ড়লেখায় দাখিল পরীক্ষায় নকলে সহযোগিতা, ৮ কক্ষ পরিদর্শককে প্রত্যাহারমৌলভীবাজারের বড়লেখা মোহাম্মদিয়া ফাজিল ডিগ্রি মাদ্রাসা কেন্দ্রে মোবাইল ফোনে পরীক্ষার্থীদের সহযোগিতার অভিযোগে ৮ কক্ষ পরিদর্শককে আজীবনের জন্য সব পাবলিক পরীক্ষার দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

মঙ্গলবারের দাখিল পরীক্ষার ইংরেজি দ্বিতীয়পত্রের পরীক্ষা চলাকালে এই ঘটনা ঘটে।

এ সময় তাদের ৮টি মোবাইল ফোন জব্দ করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহাঙ্গীর হোসাইন। একই সঙ্গে ওই পরীক্ষা কেন্দ্রের সচিব ও হল সুপারকে অব্যাহতি দিয়ে নতুন কেন্দ্র সচিব ও হল সুপার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

প্রত্যাহারকৃত কক্ষ পরিদর্শকরা হলেন- চান্দগ্রাম এইউ ফাজিল ডিগ্রি মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক সাইফুল ইসলাম ও হাফিজুর রহমান, তালিমপুর বাহারপুর দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক ইন্দ্রজিত কয়রী ও আমানুর রহমান, বড়লেখা মোহাম্মদিয়া ফাজিল ডিগ্রি মাদ্রাসার শিক্ষক আব্দুল হালিম, শাহজালাল জামেয়া ইসলামিয়া গৌড়নগর মাদ্রাসার শিক্ষক অর্জুন কান্ত দাস, পাথারিয়া গাংকুল মাদ্রাসার শিক্ষক আব্দুল মোয়াইমিন ও ফকির বাজার দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক নারায়ণ চন্দ্র দাস।

বড়লেখা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার হাওলাদার আজিজুল ইসলাম বলেন, ‘‘পরীক্ষা তদারকির দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহাঙ্গীর হোসাইন বড়লেখা মোহাম্মদিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে নিয়মিত পরিদর্শনে গিয়ে দেখতে পান প্রত্যাহারকৃত কক্ষ পরিদর্শকরা মোবাইল ফোন থেকে পরীক্ষার্থীদের উত্তর লেখায় সহযোগিতা করছেন। এ সময় তিনি ফোনগুলো জব্দ করেন।

‘‘পরে পরীক্ষা কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশক্রমে সংশ্লিষ্ট কক্ষ পরিদর্শকগণকে সবধরনের পাবলিক পরীক্ষার দায়িত্ব থেকে আজীবনের জন্য প্রত্যাহার করা হয়। একইসঙ্গে ওই কেন্দ্রের সচিব ও হল সুপারকে পরিবর্তন করে নতুন কেন্দ্র সচিব ও হল সুপার নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।’’

বাংলাদেশ সময়: ০:৩১:৪৬ ● ১৯২ বার পঠিত




আর্কাইভ