ব্রেকিং নিউজ
মৌলভীবাজারে দুগ্ধ দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জিল্লুর রহমান এমপি কমলগঞ্জে ধলাই নদীর বাঁধ ভেঙ্গে এক লাখ লোক পানি বন্দি মৌলভীবাজারের পানিবন্দি মানুষের পাশে এমপি জিল্লুর রহমান রাজনগরে “সিসিমপুর মেলার উদ্বোধন মৌলভীবাজারে প্রার্থীতা ফিরে পেলেন তাজ টেংরাবাজার টু শমসেরনগর সড়ক সংস্কারের ভিত্তিপ্রস্তর করলেন এমপি জিল্লুর রহমান রাজনগরে কৃষি উপকরণ বিতরণ করলেন এমপি জিল্লুর রহমান মৌলভীবাজার সদর উপজেলায় ৩ হাজার কৃষকের মধ্যে কৃষি উপকরণ বিতরন মৌলভীবাজারে আট হাজার নারী পুরুষ পেলেন এমপি জিল্লুর রহমানের ঈদ উপহার বেশি করে খাদ্য উৎপাদন করতে পারলে কারো কাছে মাথা নত করতে হবে না- কৃষিমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ‘কটূক্তি’, রসিম বহিস্কার

প্রথম পাতা » অনিয়ম-দুর্নীতি » বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ‘কটূক্তি’, রসিম বহিস্কার
বুধবার ● ৩১ মে ২০২৩


রসিম বহিস্কারজাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে ‘কটূক্তিকারী’ রসিম উদ্দিনকে বড়লেখার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩০ মে) দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল খালিক ও সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) আমির আলীর স্বাক্ষরিত প্যাডে এই ঘোষণা দেওয়া হয়।

এরআগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সিলেটটুডেতে ‘‘বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনাকে ‘কটূক্তিকারী’ আওয়ামী লীগের কমিটিতে’’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হলে তোলপাড় শুরু হয়। এরপর উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের জরুরী বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের লিখিত প্যাডে উল্লেখ করা হয়, গত ২৯ মে ৪ নম্বর উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে দায়িত্ব প্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রসিম উদ্দিনের বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকার লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে মো. রসিম উদ্দিনের সংগঠন বিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যায়। এ অবস্থায় বড়লেখা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাননীয় মন্ত্রী আলহাজ মো. শাহাব উদ্দিন এমপি, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সুন্দর ও সম্মেলনের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক সোয়েব আহমদের মৌখিক নির্দেশে রসিম উদ্দিনকে সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব হইতে অব্যাহতি প্রদান করা হইল।

এদিকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘কটূক্তিকারী’ যুবক কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ পদ পাওয়ায় স্থানীয় নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছিল। অনেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কটূক্তির অডিও-ক্লিপ পোস্ট দিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। পাশাপাশি রসিমকে বহিষ্কার ও তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান।

এ ব্যাপারে বড়লেখা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি-সম্পাদক বরাবর লিখিত অভিযোগ দেন ওই ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীসহ বীর মুক্তিযোদ্ধা সন্তানবৃন্দ।

গত সোমবার (২৯ মে) সন্ধ্যায় ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের মাধ্যমে উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড কমিটি গঠন করা হয়। এতে বাদেপুকুরিয়া গ্রামের মছকন্দর আলীকে সভাপতি ও রসিম উদ্দিনকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়।

কমিটি গঠন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বড়লেখা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) রফিকুল ইসলাম সুন্দর। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ হেলাল উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ, উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল খালেক, সহ সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়, রসিম উদ্দিন ২০১৯ সালের ২৫ জুলাই জনৈক এক ব্যক্তির সাথে মুঠোফোনে আলাপকালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ‘‘মুক্তিযুদ্ধের সময়ের ভূমিকা’’ নিয়ে একাধিকবার কটূক্তি করেন। একই ব্যক্তির সাথে আলাপকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ক্ষমতা নিয়েও কটূক্তি করেন রসিম। ওইদিনই (২০১৯ সালের ২৫ জুলাই) ‘‘মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ’’ নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে রসিম উদ্দিনের ছবি যুক্ত করে ফোনালাপে কটূক্তির অডিও ক্লিপটি পোস্ট করা হয়। যা সম্প্রতি এলাকায় ভাইরাল হয়। এছাড়া বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উত্তর শাহবাজপুরে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে প্রচারণা চালান রসিম উদ্দিন। এছাড়াও নৌকার নেতাকর্মীদের হুমকি দেন। সম্প্রতি একটি অসামাজিক কার্যকলাপের জন্যও তিনি এলাকায় বিতর্কিত হয়েছেন।

অভিযোগে আরও বলা হয়, সম্মেলনস্থলে স্থানীয় ওয়ার্ডের সকল আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের প্রায় ৮০ শতাংশের সমর্থন ছিল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী (সদ্য বিলুপ্ত ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক) আব্দুল হালিমের পক্ষে। কিন্তু কাউন্সিলে উপস্থিত আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সমর্থন ও মতামত উপেক্ষা করে বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তিকারী রসিমকে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মনোনীত করা হয়।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সূত্র জানিয়েছে, রসিম উদ্দিন ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের আগের দিন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ একাধিক আওয়ামী লীগ নেতাদের হুমকি দিয়ে বলেন যে, ‘‘কাউন্সিলে তাকে সাধারণ সম্পাদক পদ দেওয়া না হলে তিনি তার অনুসারীদের নিয়ে জামায়াতে যোগ দেবেন’’।

এদিকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তির অভিযোগের বিষয়ে জানতে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদ পাওয়া রসিম উদ্দিনের ব্যক্তিগত মুঠোফোনে মঙ্গলবার (৩০ মে) দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত কল দেওয়া হয়। ফোন বন্ধ পাওয়ায় এ সংক্রান্তে তার কোনো বক্তব্য জানা যায়নি।

বাংলাদেশ সময়: ১৮:৫৭:৩২ ● ২৬৭ বার পঠিত




আর্কাইভ